সর্বশেষ

আগামী দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জাহিদ মালেক | জাহান বাংলা

আগামী দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জাহিদ মালেক | জাহান বাংলা

আগামী দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দুই সপ্তাহ পরে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

আগামী দুই সপ্তাহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ২২ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি  পর্যন্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দুই সপ্তাহ বন্ধ থাকবে।

আজ শুক্রবার (২১ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কনফারেন্স রুমে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। জাহিদ মালেক জানান, আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

তিনি বলেন, প্রতিদিন আক্রান্তের হার বেড়ে যাচ্ছে। ১১ দফা দেবার পরেও সাধারণ মানুষেরা কেউ তা মানছে না। এভাবে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকলে হাসপাতালের বেড খালি থাকবে না। স্কুলে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আগামী ২ সপ্তাহ স্কুল, কলেজ, ভার্সিটি বন্ধ থাকবে। করোনা সংক্রমণ কিছুটা কমে আসায় আমরা স্কুল-কলেজ, অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করেছিলাম। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, স্কুল-কলেজে সংক্রমণের হার বেড়ে যাচ্ছে। এটা আশঙ্কাজনক। এমন অবস্থায় আমরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে আগামী দুই সপ্তাহ আমরা স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, পরে পরিস্থিতি বুঝে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশিদ আলমসহ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অনান্য কর্মকর্তারা। 


মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের বাজারে। আয়-ব্যয়ের ভারসাম্য রাখতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের বাজারে। আয়-ব্যয়ের ভারসাম্য রাখতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের বাজারে।

মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের বাজারে। আয়-ব্যয়ের ভারসাম্য রাখতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

বাংলাদেশে বাজারে মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের। বাংলাদেশের মানুষের আয়-ব্যয়ের ভারসাম্য রাখতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। 

বাংলাদেশের দোকানীরা বলছেন, এক বছরে নিত্যপণ্যের দাম বেড়েছে গড়ে ১২ শতাংশের বেশি।

আর অর্থনীতিবিদরা বলছেন, বাজারের তথ্য সংগ্রহ ও কারিগরি দুর্বলতায় বিবিএসের মূল্যস্ফীতির পরিসংখ্যান গ্রহণযোগ্যতা হারাচ্ছে বলে জানান।

করোনাকালেও বাংলাদেশ বাজারে নিত্যপণ্যের দাম দফায় দফায় বাড়ছে । বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যমতে, গত ডিসেম্বর মাসে দেশে সাধারণ মূল্যস্ফীতি ছিলো ৬ দশমিক শুন্য ৫ শতাংশ।

সংস্থাটির জরিপে, গত মাসে ঢাকা শহরে ভালো মানের গরুর মাংস বিক্রি হয়েছে ৫৭২ টাকা কেজি, খাসি ৭৮০, দেশি মুরগী ৪শ ১০, বড় চিংড়ির কেজি ৬২০ টাকা, শিং মাছ টাকার নিচে। 

কিন্তু বাজারে মিলছে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য। দোকানীরা বলছেন, বছর ব্যবধানে দাম কমেছে এমন পণ্য খুঁজে পাওয়া মুশকিল। দাম বেড়েছে চাল, ডালসহ প্রায় সকল পণ্যের।

বিবিএস এর তথ্যমতে, এক বছরে গড়ে মজুরি বেড়েছে ৬ দশমিক ১১ শতাংশ। তৈরি পোশাক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে কাজ করা শ্রমিকরা বলছেন, বেতন কিছুটা বাড়লেও বাজারদরের সাথে তারা পেরে উঠছেন না। করোনাকালে অনেকের আয় কমেছে, কারো কারো বাড়েনি বেতন। মধ্যবিত্ত শ্রেণির এসব মানুষ বেকায়দায় পড়েছেন আরো বেশি।

মূল্যস্ফীতি নির্ধারণে বিবিএস রাজধানীসহ সারাদেশের মোট ১৪০ টি বাজার থেকে খাদ্য ও খাদ্যবহির্ভূত ৪ শতাধিক পণ্যের মূল্য সংগ্রহ করে।

ভুল তথ্য নীতি নির্ধারকদের সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণের পথে বড় বাধা হয়ে দাড়াচ্ছে। মূল্যস্ফীতির সরকারি হিসাব মিলছে না নিত্যপণ্যের বাজারে। আয়-ব্যয়ের ভারসাম্য রাখতে না পেরে হিমশিম খাচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

ভারতে একটি ট্রেন হাজারেরও বেশি যাত্রী নিয়ে লাইনচ্যুত দুর্ঘটনা ঘটে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল।Bikaner–Guwahati Express Derailment

ভারতে একটি ট্রেন হাজারেরও বেশি যাত্রী নিয়ে লাইনচ্যুত দুর্ঘটনা ঘটে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল।Bikaner–Guwahati Express Derailment

  

ভারতের ট্রেন দুর্ঘটনা ছবি

এ রাজ্যের জলপাইগুড়ির দোমহনিতে আপ বিকানের এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার কবলে পড়ার পর একটি বিবৃতি জারি করেছে উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেল। এই ঘটনাকে দুঃখজনক বলে জানিয়েছে রেল।

উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক গুণীত কউর জানিয়েছেন, বুধবার দুপুর পৌনে ২টো নাগাদ বিকানের থেকে ছেড়েছিল ১৫৬৩৩ বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস। বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ নিউ দোমহনি স্টেশনের কাছেই সেটি লাইনচ্যুত হয়। 

দুর্ঘটনার খবর পেয়েই রেলের পদস্থ আধিকারিকরা রিলিফ ট্রেন নিয়ে নিউ জলপাইগুড়ি এবং আলিপুরদুয়ার থেকে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। দুর্ঘটনার পর পরই উদ্ধারকাজ শুরু হয়। প্রাথমিক ভাবে জানা গিয়েছে, ট্রেনের ১২টি কামরা লাইনচ্যুত হয়েছে। 

গুণীতের কথায়, ‘‘অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক এই ঘটনা।’’

গুণীত আরও জানিয়েছেন, লাইনচ্যুত হওয়ার সময় ওই ট্রেনে ১ হাজার ৫৩ জন যাত্রী ছিলেন। ওই যাত্রীদের উদ্ধারের জন্য সব রকম চেষ্টা চালানো হচ্ছে। যে সব যাত্রী আটকে পড়েছেন তাঁদের গন্তব্যস্থলে পাঠানোর জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে রেল।

দুর্ঘটনার জন্য বেশ কয়েকটি ট্রেনের গতিপথ পরিবর্তন করা হয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে, গুয়াহাটি-হাওড়া সরাইঘাট এক্সপ্রেস, কামাখ্যা আনন্দবিহার, কামাখ্যা-এলটিটি এসি, গুয়াহাটি-বারমের, নয়াদিল্লি- আগরতলা তেজস রাজধানী, শিয়ালদহ-আগরতলা কাঞ্চনজঙ্ঘা, লালগড়-ডিব্রুগড় অবধ অসম, ত্রিবান্দ্রম-শিলচর, নয়াদিল্লি-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস।

 পাবজি থেকে প্রেম, কন্নড় থেকে চলে এলেন বাংলাদেশ এরপর বিয়ে | জাহান বাংলা

পাবজি থেকে প্রেম, কন্নড় থেকে চলে এলেন বাংলাদেশ এরপর বিয়ে | জাহান বাংলা

কন্নড় মেয়ের থেকে বাংলাদেশর ছেলের পাবজি থেকে প্রেম

বাংলাদেশ অনেক ধরণের প্রেম তারপর বিয়ের ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশের অনেক যুবক-যুবতী সোশ্যাল মিডিয়ায় আলাপে প্রেম, তারপর বিয়ে। এমন নজির প্রচুর হয়েছে বাংলাদেশ। তাই বলে ভার্চুয়াল গেম অ্যাপে প্রেমিকা তথা বউ খুঁজে পাওয়া? এই ঘটনা নজিরবিহীন। কর্ণাটকের কন্যার সাথে বিয়ে হলো বাংলার ধুপগুড়ির যুবকের। নেপথ্যে ভার্চুয়াল গেম অ্যাপ পাবজি।

সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদনে বলা হয়, যুবক সাইনুল আলম জলপাইগুড়ির বাসিন্দা। দীর্ঘদিন পাবজি খেলায় আসক্ত থাকায় তাকে বহু গালমন্দ শুনতে হয়েছে পরিবার ও প্রতিবেশীদের কাছে। আর সেই খেলা থেকেই কিনা ঘরে এলো বউ!

সাইনুল বলেন, আমি বহু দিন ধরেই পাবজি খেলি। সেই পাবজি থেকেই আমার সাথে আলাপ হয় কন্নড়ের যুবতী ফ্রিজার সাথে। শুরুতে আমরা দু’জন ছিলেন একে অপরের কড়া প্রতিপক্ষ। খেলার নিয়ম অনুযায়ী আমার ও তার মধ্যে চলে গুলি ছোঁড়াছুড়িও। এরপরই পরিচয়, ফোন নম্বর বিনিময়। এবং ধীরে ধীরে গভীর হয় আলাপ। এভাবেই একদিন অনলাইনে দেখা করি দু’জনে।


পারিবারিক ব্যবসা মুদি দোকান সামলাতে হয় সাইনুলকে। ফলে ইচ্ছে থাকলেও সুদূর দক্ষিণ ভারতের রাজ্য কর্ণাটকে গিয়ে মনের মানুষ ফ্রিজার সাথে দেখা করা হয়নি সাইনুলের। তবে ফ্রিজা কিন্তু বাইরের দূরত্বের পরোয়া করেনি। ফ্রিজা শনিবার (৮ জানুয়ারি) বেঙ্গালুরু থেকে বাগডোগরা হয়ে সটান পৌঁছে যায় সাইনুলের ঠিকানায়। ফ্রিজার বিষয়ে কিছুই জানা ছিল না পরিবারের। ফলে কন্নড় মেয়েকে দেখে বেজায় অবাক হয় সাইনুলের পরিবারের সদস্যরা। তাতে অবশ্য কিছু আটকায়নি। কারণ নাছোড় মেয়েকে পছন্দ হয় সকলেরই। এরপরই সাইনুলের পরিবার যোগাযোগ করে ফ্রিজার পরিবারের সাথে। একইদিনে শনিবার বিকেলে বিয়ে হয় সাইনুল-ফ্রিজার। পরিবার, পাড়া-প্রতিবেশী সকলকে চমকে দিয়ে বিয়ে করে বেজায় খুশি সাইনুল।

নতুন বউকে পাশে নিয়ে সাইনুল বলেন, খেলায় আমরা শত্রু ছিলাম বটে। ওকে হারানোই ছিল উদ্দেশ্য। কিন্তু ও খুবই ভালো যোদ্ধা। তাই আলাপ করতে ইচ্ছে হলো। ভাল লাগল। তারপরের ঘটনা তো এখন বাংলা থেকে কর্ণাটক সকলেরই জানা।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বরিস জনসনের ‘কেলেংকারি’ একটি মেল ফাঁস | জাহান বাংলা

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বরিস জনসনের ‘কেলেংকারি’ একটি মেল ফাঁস | জাহান বাংলা

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

ব্রিটেনে গত বছর তখন দেশজুড়ে চলছিল জাতীয় লকডাউন। সে সময় দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সরকারি বাসভবন ও কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটের ১০ নম্বর গার্ডেনে 'ব্রিং ইউর ওউন বুজ' বা 'আপনার নিজের মদ আনুন' পার্টিতে তার কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়।

সেই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং বরিস জনসন ও তার স্ত্রী। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া এক ইমেইলে এই তথ্য জানা গেছে। বৃটিশ আইটিভি নিউজ এই মেইল প্রকাশ করেছে।

ফাঁস হওয়া মেইল। ছবি সংগৃহীত
ফাঁস হওয়া মেইল। ছবি সংগৃহীত

মেইলে লেখা ছিল, এক অবিশ্বাস্য ব্যস্ত সময় পর আমরা ভাবছি এই সন্ধায় ১০ নম্বর গার্ডেনে 'মনোরম আবহাওয়ার সর্বাধিক ব্যবহার' এবং সামাজিক দূরত্বের কিছু পানীয় পান করা ভাল হবে৷ অনুগ্রহ করে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে যোগ দিন এবং আপনার মদ নিয়ে আসুন।  

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালের ২০ মে আয়োজন করা হয় ওই পার্টির। সে সময় দেশটিতে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করা নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু সেই সময় পার্টিতে অন্তত ১০০ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তবে সে দিন সেই পার্টিতে প্রায় ৪০ জন অংশ নেন। যাদের মধ্যে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং তার স্ত্রী ক্যারি সিমন্ডসও উপস্থিত ছিলেন। 

আইটিভির খবর, দেশটির প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল প্রাইভেট সেক্রেটারি মার্টিন রেনল্ডস ডাউনিং স্ট্রিটের ওই পার্টিতে অংশ নিতে ১০০ এর বেশি জনকে মেইল করেন। এসবের মধ্যে রয়েছেন বরিসের উপদেষ্টা, বক্তৃতা লেখক এবং দরজার স্টাফ। ওই পার্টির আয়োজন কালে দেশটির বেশিরভাগ শিক্ষার্থীদের স্কুল বন্ধ ছিল, বন্ধ ছিল বার, রেস্টুরেন্ট। একই সঙ্গে সামাজিক মেলামেশায় ছিল কড়া নিয়ন্ত্রণ।

 বিভিন্ন পরিবারের দুজন লোককে বাইরে দেখা করার অনুমতি ছিল। শর্ত ছিল তাদের ২ মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এদিকে দেশটির বিরোধী লেবার পার্টি জনসনকে অভিযুক্ত করেছে যে, আমাদের জন্য তিনি যে নিয়ম করেছেন তার প্রতি তার নিজের কোন সম্মান নেই। এছাড়া বিরোধী অনেক নেতা এর কড়া নিন্দা জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বৃটিশ সংবাদ মাধ্যমে বিবিসিকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং তার স্ত্রী পার্টিতে ছিলেন। এই বিষয়ে বরিসের কার্যালয়ে যোগাযোগ করা হলে কোনো মন্তব্য করা হয় নি বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

দেশটির মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে তারা এই বিষয়ে সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। 

তথ্যসূত্র: বিবিসি, আইটিভি, এনডিটিভি।  

মহামারিতে বিশ্বে ব্যাপক কমেছে কনডম বিক্রি | জাহান বাংলা

মহামারিতে বিশ্বে ব্যাপক কমেছে কনডম বিক্রি | জাহান বাংলা

মহামারিতে বিশ্বে ব্যাপক কমেছে কনডম বিক্রি | জাহান বাংলা

খবর নিক্কি এশিয়ারঃ

মহামারিতে বিশ্বে বাজারে ব্যাপক কমেছে কনডম বিক্রি। মহামারির দুই বছরে বিশ্বজুড়ে ব্যাপকভাবে কমেছে কনডম বিক্রি। বিশ্ব বাজারে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও অন্যতম শীর্ষ কনডম প্রস্তুতকারী কোম্পানি ক্যারেক্স বিএইচডি জানিয়েছে, গত ২ বছরে বিশ্বজুড়ে তাদের কনডম বিক্রি কমেছে ৪০ শতাংশেরও বেশি। 

নিক্কি এশিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ক্যারেক্স বিএইডির শীর্ষ নির্বাহী কর্মকর্তা গোহ মিয়াহ কিয়াত বলেন, কোম্পানির বার্ষিক আয়-ব্যয়ের হিসাব পর্যালোচনা করে তাদের পণ্য বিক্রি কমে যাওয়ার এ তথ্য জানা গেছে।

মহামারির দুই বছরে যেখানে বিশ্বের দেশে দেশে লকডাউনসহ নানা কঠোর বিধিনিষেধের কারণে মানুষজন দিনের পর দিন বাড়িতে থাকতে বাধ্য হয়েছে, সেখানে কনডম বিক্রির হার কমে যাওয়া বিস্ময়কর, অথচ কোম্পানি ভেবেছিলো যে লকডাউনে কনডমের বিক্রি বাড়বে। ক্যারেক্স বিএইডির শীর্ষ নির্বাহী কর্মকর্তা গোহ মিয়াহ কিয়াত ।

ব্লুমবার্গ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত দুই বছরে কনডম বিক্রি কমে যাওয়ায় মালয়েশিয়ার শেয়ারবাজারে ক্যারেক্স বিএইচডির শেয়ারের মূল্য কমেছে প্রায় ১৮ শতাংশ। লোকসান সামাল দিতে গিয়ে কমডমের উৎপাদন কমিয়ে গত বছরের মাঝামাঝি থেকে থাইল্যান্ডে মেডিকেল গ্লাভস প্রস্তুত করা শুরু করেছে কোম্পানিটি।

মালয়েশিয়াভিত্তিক কোম্পানিটির ধারণা, মহামারিতে বিশ্বজুড়ে হোটেলগুলোতে কনডমের ব্যবহার কমে যাওয়া এবং সরকারি-বেসরকারিভাবে কনডম ব্যবহারের পক্ষে প্রচার-প্রচারণা হ্রাস পাওয়াই এর বিক্রি কমে যাওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ বলে ধরনা করা হয়েছে। 


১১ দফা নির্দেশনা কি আছে দেখুন। এই নির্দেশনা আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে কার্য করা হবে। জাহান বাংলা

১১ দফা নির্দেশনা কি আছে দেখুন। এই নির্দেশনা আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে কার্য করা হবে। জাহান বাংলা

আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ ১১ দফা নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২ হাজার ২৩১ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এতে করে দেশে করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৯৫ হাজার ৯৯০ জনে।

২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয় ২৬ হাজার ১৪৩ জনের। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৫৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২০৮ জন। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৫১ হাজার ১১৩ জন।

এর আগে, রোববার (৯ জানুয়ারি) করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল। ভাইরাসটিতে শনাক্ত হয়েছিলেন ১ হাজার ৪৯১ জন।

আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ ১১ দফা নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। 

নির্দেশনাগুলো হলো:

☞ ১. দোকান, শপিং মল ও বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতা এবং হোটেল-রেস্তোরাঁসহ সকল জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে। অন্যথায় তাকে আইনানুগ শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে।

☞ ২. অফিস-আদালতসহ ঘরের বাইরে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে ব্যত্যয় রোধে সারাদেশে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে হবে।

☞ ৩. রেস্তোরাঁয় বসে খাবার গ্রহণ এবং আবাসিক হোটেলে থাকার জন্য অবশ্যই করোনা টিকা সনদ প্রদর্শন করতে হবে।

☞ ৪. ১২ বছরের বেশি বয়সী সকল শিক্ষার্থীকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক নির্ধারিত তারিখের পরে টিকা সনদ ছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।

☞ ৫. স্থলবন্দর, সমুদ্রবন্দর ও বিমানবন্দরে স্ক্রিনিং-এর সংখ্যা বাড়াতে হবে। পোর্টগুলোতে ক্রুদের জাহাজের বাইরে আসার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করতে হবে। স্থলবন্দরগুলোতেও আগত ট্রাকের সঙ্গে শুধু ড্রাইভার থাকতে পারবে। কোনও সহকারী আসতে পারবে না। বিদেশগামীদের সঙ্গে আসা দর্শনার্থীদের বিমানবন্দরে প্রবেশ বন্ধ করতে হবে।

☞ ৬. ট্রেন, বাস এবং লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক সংখ্যক যাত্রী নেওয়া যাবে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কার্যকারিতার তারিখসহ সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবে। সর্বপ্রকার যানের চালক ও সহকারীদের আবশ্যিকভাবে কোভিড-১৯ টিকা সনদধারী হতে হবে।

☞ ৭. বিদেশ থেকে আসা যাত্রীসহ সবাইকে বাধ্যতামূলক কোভিড-১৯ টিকা সনদ প্রদর্শন করতে হবে।

☞ ৮. স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন এবং মাস্ক পরিধানের বিষয়ে সকল মসজিদে জুমার নামাজের খুতবায় ইমামরা সংশ্লিষ্টদের সচেতন করবেন। জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসাররা এ বিষয়টি নিশ্চিত করবেন।

☞ ৯. সর্বসাধারণের করোনার টিকা এবং বুস্টার ডোজ গ্রহণ ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় প্রচার এবং উদ্যোগ গ্রহণ করবে। এক্ষেত্রে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সহায়তা গ্রহণ করবে।

☞ ১০. উন্মুক্ত স্থানে সর্ব সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান এবং সমাবেশ পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখতে হবে।

☞ ১১. কোনো এলাকার ক্ষেত্রে বিশেষ কোনো পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে সেক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসন সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নিতে পারবে।

বৃহস্পতিবার থেকে বাইরে বের হলে শাস্তি যদি, মাস্ক না পরে | জাহান বাংলা

বৃহস্পতিবার থেকে বাইরে বের হলে শাস্তি যদি, মাস্ক না পরে | জাহান বাংলা

 

বৃহস্পতিবার থেকে বাইরে বের হলে শাস্তি যদি, মাস্ক না পরে | জাহান বাংলা

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন-ওমিক্রন দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার লক্ষ্যে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আজ সোমবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। 

মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক

এতে বলা হয়েছে, দোকান, শপিংমল ও বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতা এবং হোটেল-রেস্তোরাঁসহ সব জনসমাগমস্থলে বাধ্যতামূলকভাবে সবাইকে মাস্ক পরিধান করতে হবে। অন্যথায় তাকে আইনানুগ শান্তির সম্মুখীন হতে হবে বলে জানিয়েছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এক প্রজ্ঞাপনে।

বিস্তারিত দেখুনঃ- ১১টি বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হবে কিনা জানিয়েছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি | জাহান বাংলা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হবে কিনা জানিয়েছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি | জাহান বাংলা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হবে কিনা জানিয়েছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি | জাহান বাংলা

শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর আফতাবনগরে একটি কলেজের রজতজয়ন্তী উৎসব অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছেন, দেশে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও আপাতত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কোন পরিকল্পনা নেই বলে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে হয়েছে। নতুন করে আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে চায় না সরকার। এ কারণে শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রমের ওপর বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা.দীপু মনি।

ডা. দীপু মনি বলেন, এর আওতায় প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের আনা সম্ভব হচ্ছে না।

শনিবার সকালে মানিকগঞ্জে আরেক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও বলেছেন, এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ হচ্ছে না। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) এক ডোজ টিকা ছাড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আসা যাবে না বলে জানিয়েছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

চীনে মারাত্মক বিস্ফোরণে ক্যাফেটেরিয়ার ভবন ধস, নিহত ১৬ | জাহান বাংলা

চীনে মারাত্মক বিস্ফোরণে ক্যাফেটেরিয়ার ভবন ধস, নিহত ১৬ | জাহান বাংলা

 

চীনে মারাত্মক বিস্ফোরণে ক্যাফেটেরিয়ার ভবন ধস, নিহত ১৬ | জাহান বাংলা
শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুরের দিকে চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় চংকিং শহরে এক ক্যাফেটেরিয়ায় ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এই বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ১৬ জন। গুরুতর আহত আরও ১০ জন।

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, গ্যাস লিকেজ থেকে ঘটে এ বিস্ফোরণের ঘটনা। বিস্ফোরণের তীব্রতার ধসে পড়ে ভবনটি। এতে ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা পড়েন সেখান অবস্থানকারী সবাই। দুর্ঘটনার পর পরই সেখানে উদ্ধারকাজ শুরু করেন ফায়ার সার্ভিসের ৬০০ জন কর্মী।

ধ্বংসস্তূপ সরিয়ে বের করে আনেন হতাহতদের। আহত সবাই স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। দুর্ঘটনার কারণ উদঘাটনে চলছে তদন্ত।

সূত্রঃ যমুনা টিভি

ইলিয়াস-সুবাহ’র  ভিডিও প্রকাশ | জাহান বাংলা

ইলিয়াস-সুবাহ’র ভিডিও প্রকাশ | জাহান বাংলা

 

ইলিয়াস-সুবাহ’র  ভিডিও প্রকাশ | জাহান বাংলা
গত মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) বনানীর বাসায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন চিত্রনায়িকা সুবাহ। সেখানে ইলিয়াসের বিচার চেয়ে অঝোরে কাঁদেন এই নায়িকা। তিন দিন যেতে না যেতেই এবার তাদের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন সুবাহ। যে ভিডিওতে তিনি ক্রিকেটার নাসির হোসেনের সঙ্গে নিজের সম্পর্কের ব্যাপারটি ফাঁস করেছিলেন। নাসিরের আলোচিত সেই ‘সাবেক প্রেমিকাকে বিয়ে করেছেন গায়ক ইলিয়াস হোসাইন। কিন্তু তাদের মধ্যে হঠাৎ করেই শুরু হয় ঝামেলা। সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে মুখ খোলেন সুবাহ।

তিন বছর আগের কথা। ২০১৮ সালে মডেল ও অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমায়রার একটি ভিডিও তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছিল।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভিডিওটি প্রকাশ করে সুবাহ ক্যাপশনে লেখেন, ‘সে নাকি বিয়েতে হাসেনি?’ এই প্রশ্নে উত্তর খুঁজে পাওয়া গেল ভিডিওটি দেখে। সেখানে দেখতে পাওয়া যায়, ইলিয়াস হাস্যজ্জ্বল অবস্থায় বর সেজে বসে আছেন। পাশে বউ সেজে বসে আছেন সুবাহ। তাদের সঙ্গে আরও বেশ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন সেখানে।

তাদের সঙ্গে উভয়ই হাসিমুখে কথা বলছেন। একপর্যায়ে ইলিয়াস-সুবাহ’র মুখে খাবার তুলে দিচ্ছেন। এ প্রসঙ্গে ইলিয়াস একটি বেসরকারি চ্যানেলের লাইভে কথা বললেও, সুবাহ’র সংবাদ সম্মেলনের পর থেকে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ১ ডিসেম্বর বিয়ে করেন সংগীতশিল্পী ইলিয়াস ও সুবাহ। বিয়ের এক মাস না পেরুতেই তাদের সংসারে অশান্তি শুরু হয়। দুজনেই একে-অপরকে দোষারোপ করছেন।

সুবাহ লাইভে বলেন, ইলিয়াস আমাকে নিয়ে একের পর এক মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছে। এমনকি আমার মাকে নিয়েও সে অনেক বাজে কথা বলেছে। আমি আর নিতে পারছি না এসব, তাই লাইভে এসেছি।

 মিথ্যা বলার একটা সীমা থাকে, আমি সব প্রমাণ নিয়েই হাজির হয়েছি। মামলা করেছি; তবে করতে চাইনি। আপনারা আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন। আমি অসুস্থ তাই বেশি একটা কথা বলতে পারছি গত ৪ জানুয়ারি বিকেলে এ বিষয়ে বনানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আজম মিয়া আরটিভি নিউজকে বলেন, যৌতুক চেয়ে মারধরের অভিযোগে সোমবার (৩ জানুয়ারি) রাতে গায়ক ইলিয়াসের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন নায়িকা সুবাহ, মামলা নং-০১। মামলাটির তদন্ত চলছে। বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

ফরিদপুরে জেলা পাসপোর্ট অফিসের দালাল চক্রের ৫ জন আটক করেন। জাহান বাংলা

ফরিদপুরে জেলা পাসপোর্ট অফিসের দালাল চক্রের ৫ জন আটক করেন। জাহান বাংলা

ফরিদপুরে জেলা পাসপোর্ট অফিসের দালাল চক্রের ৫ জন আটক করেন। জাহান বাংলা


ফরিদপুরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে পাসপোর্ট অফিসের দালাল চক্রের পাঁচ সদস্যেক আটক করেন পুলিশ। এসময় আটকৃতদের কাছ থেকে পাসপোর্টের অবৈধ লেনদেনের ৫টি খাতা, টাকা জমা দেওয়ার চালান বই, দুটি মনিটর, নগদ ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আটকৃতরা হলো, নাদিম হাসান, তারিকুর রহমান, রাব্বি মোল্লা, আল আমিন শেখ এবং মোজাম্মেল হোসেন শিমুল। জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা। পুলিশ জানায়, দীর্ঘ দিন ধরে এই চক্রটি মানুষদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টকা নিয়ে অবৈধ ভাবে পাসপোর্ট অফিসের কাজ করতো।

 এছাড়া চাহিদা অনুযায়ী টাকা না পেলে গ্রাহককে জিম্মি করে আটকে রেখে নির্যাতন করতো আটককৃতরা। ফরিদপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা জানান, নগরকান্দার থানার জুলহাস সিকদার নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে বিষয়টি প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা মিললে আমরা অভিযান পরিচালনা করি।

পরে তাদের আটক করা হয়। আজ শুক্রবার তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে।

তিনি বলেন, এই ঘটনায় জুলহাস সিকদার বাদী হয়ে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি মামলা করেছেন, সেই মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।


২০২১ সালের এসএসসি ডাচ্-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন শুরু | জাহান বাংলা

২০২১ সালের এসএসসি ডাচ্-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন শুরু | জাহান বাংলা

২০২১ সালের এস.এস.সি./সমমান পরীক্ষায় উত্তীৰ্ণ সকল ছাত্র-ছাত্রীদের ডাচ্-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক তার শিক্ষাবৃত্তি কর্মসূচির আওতায় দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উচ্চ মাধ্যমিক, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে অধ্যায়নরত মেধাবী ও আর্থিকভাবে অসচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদেরকে বৃত্তি প্রদান করে আসছে। এই ধারাবাহিকতায় ২০২১ সালের এস.এস.সি./সমমান পরীক্ষায় উত্তীৰ্ণ মেধাবী শিক্ষার্থী, শিক্ষা ক্ষেত্রে আর্থিক সহায়তা প্রত্যাশী নিম্নবর্ণিত যোগ্যতা সম্পন্ন ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে অনলাইনে বৃত্তির জন্য দরখাস্ত আহ্বান করা হচ্ছে। 

আবেদনের ঠিকানা: https://app.dutchbanglabank.com/DBBLScholarship/

২০২১ সালের এস.এস.সি./সমমান পরীক্ষায় উত্তীৰ্ণ সকল ছাত্র-ছাত্রীদের ডাচ্-বাংলা ব্যাংক শিক্ষাবৃত্তি আবেদন

DBBLScholarship 2021 ssc


জকিগঞ্জে পুকুরের পানিতে সিল মারা ব্যালট! জাহান বাংলা

জকিগঞ্জে পুকুরের পানিতে সিল মারা ব্যালট! জাহান বাংলা

জকিগঞ্জে পুকুরের পানিতে সিল মারা ব্যালট! জাহান বাংলা

সিলেটের জকিগঞ্জে একটি-দু’টি নয়, শত শত সিল মারা ব্যালট পুকুরের পানিতে ভাসতে দেখা গেল।বুধবার (০৫ জানুয়ারি) বিকেলে সিলেটের জকিগঞ্জের সুলতানপুর ইউনিয়নের গনিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ব্যালটবাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে।কেন্দ্র থেকে ছিনতাইকৃত ব্যালট বাক্স নিয়ে ফেলা হয়েছে পার্শ্ববর্তী পুকুরে। এ ঘটনায় ওই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

তবে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ। স্থানীয়রা জানান, এদিন বিকেল সোয়া ৩টার দিকে সুলতানপুর ইউনিয়নের গণিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকার পক্ষে ভোট কম পড়েছে, এমন গুঞ্জনে কর্মী-সমর্থকরা পুলিশের সামনেই ভোট কক্ষে ঢোকে বাক্স ছিনতাই করেন।

বিস্তারিত দেখুনঃ পুকুরের পানিতে সিল মারা ব্যালট!

বন্ধ হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আনুন খুব সহজে | জাহান বাংলা

বন্ধ হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আনুন খুব সহজে | জাহান বাংলা

বন্ধ হওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আনুন খুব সহজে | জাহান বাংলা

ফেসবুক ব্যবহারের কমিউনিটি ভায়োলেশনের কারণে অনেক সময় ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় বা বন্ধ করে দিতে পারে ফেসবুক। তবে এরজন্য দুশ্চিন্তা কারর নেই। আমি ফেসবুকের কাছে থেকে আবেদনের মাধ্যমে ফেরত পাওয়া সম্ভব। আপনি আবেদন ফর্মে ফেসবুকে দেওয়া নাম, পরিচয়ের প্রমাণ এবং নির্দিষ্ট বিষয়ে ব্যাখ্যা প্রদান করলেই ফেসবুক আপনার অ্যাকাউন্টের বিষয়ে ফেরত দিতে পারে। আজকে আমারা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা আইডি নিষ্ক্রিয় বা বন্ধ হয়ে গেলে কি ভাবে ফেরত নেওয়া যায় সেই সম্পর্কে সঠিক এবং বিস্তারিত জানবো।

যে কারণে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ বা নিষ্ক্রিয় হয়ে যেতে পারে।

ফেসবুক কর্তৃক আপনার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করে দিতে পারে। যদি আপনি ফেসবুক এমনভাবে ব্যবহার করেন যা ফেসবুক ব্যবহারের শর্তাবলি এবং মান লঙ্ঘন করে। এর মধ্যে রয়েছে নকল নাম ব্যবহার করা, কারও ছদ্মবেশ ধারণ করা, স্প্যাম বার্তা পাঠানো এবং অন্যান্য ব্যবহারকারীদের হয়রানি করা, ইত্যাদি।

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় হয়েছে কি না নিশ্চিত হবে যেভাবে।

প্রথমত আপনি গুগলে Facebook বা https://www.facebook.com সার্চ করে ওপেন করুণ। এরপর আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগ ইন করার জন্য ইউজার নেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করুন। 

আপনার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে’ যদি এমন কোনো বার্তা দেখতে পান।  তবে বুঝবেন আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তবেই পুনরুদ্ধারের জন্য আবেদন করতে পারেন?


নিষ্ক্রিয় ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফিরে পেতে আবেদন করবে যেভাবে?

নিষ্ক্রিয় ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জন্য অফিসিয়াল আবেদন ফরম এর লিংক https://www.facebook.com/help/contact/260749603972907

যদি আপনি মনে করেন, ভুলবশত আপনার অ্যাকাউন্টটি নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে, তাহলে এই ফরমটি ব্যবহার করে তাদের মনোযোগ আকৃষ্ট করতে পারে।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ফেরত আবেদন ফরম

☞ ই-মেইল এড্রেস অথবা ফোন নম্বর লিখুন

নিষ্ক্রিয় অ্যাকাউন্টটিতে ব্যবহৃত ই-মেইল এড্রেস বা ফোন নম্বর ব্যবহার করুন। অবশ্যই এই ই-মেইল অ্যাকাউন্ট বা ফোন নম্বরে অ্যাক্সেস থাকতে হবে। কারণ আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে ফেসবুক এটি ব্যবহার করবে।

☞ পুরো নাম লিখুনঃ ‘ইউর ফুল নেম’ ফিল্ডে সেই নামটিই টাইপ করবেন যেটি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে উল্লেখ ছিল। আসল নাম ব্যবহার না করার কারণে ফেসবুক যদি আপনার অ্যাকাউন্ট বাতিল করে তাহলেও পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করার সুযোগ আপনার থাকবে।

☞ আইডি কার্ডের ছবি আপলোড করুন

হতে পারে এটি আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স, জন্ম নিবন্ধন, লার্নার পারমিট, ইমিগ্রেশন কার্ড, উপজাতি পরিচয় বা স্ট্যাটাস কার্ড, নাম পরিবর্তনের অফিসিয়াল কাগজপত্র এবং পাসপোর্ট বা অন্যান্য সরকারি আইডি। এবার যা করবেন-

১. আইডি কার্ডের ছবি তুলুন বা।

২. কম্পিউটার বা ফোনে গ্যালারির ছবি ব্যবহার করুণ।

৩. ফাইল নির্বাচন করুন (Choose Files) এ ক্লিক করুন।

৪. আপলোড করার জন্য ছবি নির্বাচন করুন

৫. খুলুন (Open) এ ক্লিক করুন

☞ পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করুন

আপনার যেসব তথ্য ফেসবুকের জানানো উচিত তা পেজের নিচে থাকা ‘এডিশনাল ইনফো’-এর মধ্যে লিখে দিন। বিনয়ী হন এবং নিশ্চিত করুন ফেসবুক যেন বুঝতে পারে, আপনি আপত্তিকর আচরণ সংশোধন বা পরিবর্তন করার পরিকল্পনা করছেন। যদি আপনার প্রকৃত নাম ফেসবুকের থেকে আলাদা হয় তাহলে ফেসবুককে এর কারণ অবহিত করুন। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি নাম পরিবর্তন প্রক্রিয়ার মধ্যে থাকেন, তাহলে সেটি পরিষ্কার করুন।

☞ সেন্ড এ ক্লিক করুন।

এটি ফর্মের নিচে ডানদিকে রয়েছে। যদি ফেসবুক নিষ্ক্রিয়করণ প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেয় তাহলে আপনাকে একটি বার্তা পাঠাবে। সেখানে আপনার অ্যাকাউন্টটি সচল থাকবে।


চীনকে সতর্ক করল তাইওয়ান! সামরিক সংঘাতে কোনও সমাধান নেই | জাহান বাংলা

চীনকে সতর্ক করল তাইওয়ান! সামরিক সংঘাতে কোনও সমাধান নেই | জাহান বাংলা

চীনকে সতর্ক করল তাইওয়ান! সামরিক সংঘাতে কোনও সমাধান নেই।

ইংরেজি নববর্ষের ভাষণে চীনকে সতর্ক করে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন বলেছেন, সামরিক সংঘাত কোনও সমাধান হতে পারে না। সামরিক দুঃসাহসিকতা না দেখাতে বেইজিংয়ের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

চীনকে সতর্ক করল তাইওয়ান! সামরিক সংঘাতে কোনও সমাধান নেই | জাহান বাংলা

স্থানীয় সময় শনিবার ফেসবুক লাইভে দেয়া ভাষণে এসব কথা বলেন, তাইওয়ান দেশটির প্রেসিডেন্ট সাই ইং ওয়েন।

তিনি আরও বলেন, তাইওয়ান কখনো চীনের চাপের মুখে নতি স্বীকার করবে না, স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে গণতন্ত্র রক্ষায় বার বার লড়াই করে যাবে।  আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার দায়িত্ব দুই দেশের ওপরই র্কতৃত্ব্য বলেও উল্লেখ করেন সাই ইং ওয়েন।

সম্প্রতি তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা জোনে চীনের রেকর্ডসংখ্যক যুদ্ধবিমান অনুপ্রবেশ করার পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। চীন গণতান্ত্রিক শাসনব্যবস্থায় পরিচালিত তাইওয়ানকে নিজেদের ‘বিচ্ছিন্ন প্রদেশ’ বিবেচনা করে; স্বশাসিত দ্বীপটি যেন ‘চীনের অধীনতা’ থেকে বের হতে না পারে তা নিশ্চিত করতে গত দুই বছর ধরে বেইজিং তাদের ওপর সামরিক ও কূটনৈতিক চাপও বাড়িয়ে চলেছে।

নতুন বছর উপলক্ষে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তার ভাষণে বলেছেন, ‘মাতৃভূমির’ পূর্ণাঙ্গ একত্রীকরণ এমন একটি আকাঙ্ক্ষা, যা তাইওয়ান প্রণালীর দুই দিকের মানুষজনই ধারণ করে। অন্যদিকে, তাইওয়ান বলে আসছে, তারা স্বাধীন দেশ। নিজেদের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র ‘যে কোনো মূল্যে’ রক্ষার প্রতিজ্ঞাও করে আসছে তারা।

সাই ইং ওয়েন বলেন, “প্রণালীর দুই পাশের মধ্যকার মতবিরোধের সমাধানে সামরিক হস্তক্ষেপ বিকল্প হতে পারে না। সামরিক সংঘাত অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতায় প্রভাব ফেলবে"।

তিনি আরও বলেন, চাপে ভেঙে না পড়া এবং সহায়তা এলে তড়িঘড়ি করে তা গ্রহণ না করাই সবসময় তাইওয়ানের অবস্থান ছিল। এই অঞ্চলে উত্তেজনা কমাতে তাইপে এবং বেইজিং উভয়কেই ‘মানুষের জীবিকার দেখভালে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে ও জনগণের হৃদয়কে শান্ত করতে হবে’, যেন একসাথে সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধান খুঁজে পাওয়া যায়।

তিনি জানান, স্থিতিশীল শাসন ব্যবস্থাই ২০২২ সালে তাইওয়ানের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য। “আমরা আমাদের সার্বভৌমত্বকে নিরাপদ রাখবো, স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখব, আঞ্চলিক সার্বভৌমত্ব ও জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষা করব এবং ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখব"।


এক সপ্তাহে বিশ্বে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ৬০ শতাংশ | বাংলা নিউজ

এক সপ্তাহে বিশ্বে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ৬০ শতাংশ | বাংলা নিউজ

গত সাতদিনে ফ্রান্সে সংক্রমণ বেড়েছে ১১৩ শতাংশ।এদিকে ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ভারতে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। এক সপ্তাহে দেশটিতে সংক্রমণ বেড়েছে ৭৫ শতাংশ।

এক সপ্তাহে বিশ্বে ওমিক্রন করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ৬০ শতাংশ | বাংলা নিউজ

এক সপ্তাহে বিশ্বে ওমিক্রন করোনা সংক্রমণ বেড়েছে ৬০ শতাংশ। বিশ্বে করোনায় একদিনে ১৬ লাখ ৩২ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত শনাক্ত ২৮ কোটি ৮৫ লাখের বেশি। একদিনে ৫ হাজার ৬২৭ মৃত্যু নিয়ে বিশ্বে প্রাণহানি ছাড়িয়েছে ৫৪ লাখ ৫২ হাজার। এদিকে ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে সর্বোচ্চ ৪ লাখ ৪৩ হাজার শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। 

দেশটিতে মারা গেছে ৭১৬ জন। দেশটিতে গত সাতদিনে সংক্রমণ বেড়েছে ৭২ শতাংশ। এদিকে করোনার ওমিক্রন ও ডেল্টা ধরন সুনামির আকারে ছড়াচ্ছে বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।সংক্রমণ শুরুর পর একদিনে সর্বোচ্চ ২ লাখ ৩২ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে ফ্রান্সে। নতুন বছরে ওমিক্রনের সংক্রমণ ঠেকাতে নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে দেশটি।

গত সাতদিনে ফ্রান্সে সংক্রমণ বেড়েছে ১১৩ শতাংশ। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১ কোটি। একদিনে প্রায় ১ লাখ ৯০ হাজার রোগী শনাক্তের রেকর্ড হয়েছে যুক্তরাজ্যে। ইতালি, স্পেন, জার্মানিতে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে সংক্রমণ। শুক্রবার ইতালিতে ১ লাখ ৪৪ হাজার নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে, যা সংক্রমণ শুরুর পর দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ।

করোনার অতি সংক্রামক ধরন ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ভারতে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। এক সপ্তাহে দেশটিতে সংক্রমণ বেড়েছে ৭৫ শতাংশ। সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রের। সাত মাস পর ৩৬ শতাংশ সংক্রমণ বেড়েছে রাজধানী দিল্লিতে।করোনা সংক্রমণ রোধে আর্জেন্টিনায় বাড়ানো হয়েছে নমুনা পরীক্ষার পরিধি।

ওমিক্রন রোধে টিকা কার্যক্রম বাড়াচ্ছে বিভিন্ন দেশ। হার্ট ট্রান্সপ্লান্ট করা রোগীদের টিকার দ্বিতীয় বুস্টার ডোজের কার্যক্রম শুরু করেছে ইসরায়েল। এর আগে গতকাল ২৪ ঘণ্টায় ১৮ লাখ ৭৪ হাজার করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল।

মহামারী শুরুর পর একদিনে শনাক্তের সর্বোচ্চ রেকর্ড এটি। করোনাভাইরাসের তাণ্ডব বিশ্বব্যাপী ফের মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এদিকে করোনা মোকাবিলায় দেশগুলো একসঙ্গে কাজ করলে ২০২২ সালের মধ্যে মহামারির অবসান ঘটানো সম্ভব বলে আশা ব্যক্ত করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস অ্যাডানম গ্যাব্রিয়াসাস। চীনে করোনা শনাক্ত হওয়ার ঠিক ২ বছর পর তিনি এ মন্তব্য করেন।

সিম পিন কোড ও পাক কোড (SIM PIN Code, SIM PUK Code) কি ও এর ব্যবহার |  জাহান বাংলা

সিম পিন কোড ও পাক কোড (SIM PIN Code, SIM PUK Code) কি ও এর ব্যবহার | জাহান বাংলা

আমরা সবাই সিমের পিন কোড, পাক কোড,(SIM PIN Code,  SIM PUK Code) ইত্যাদি শব্দ প্রায়ই শুনে থাকি। তবে আমরা জানি এই গুলোর কাজ কী? তবে এসব পিন কোড, পাক কোড  (SIM PIN Code,  SIM PUK Code) কী কাজে ব্যবহৃত হয়, সেসব ব্যাপারে অনেক মোবাইল ব্যবহারকারীর এই বিষয়ে কোনো ধারণা নেই। তবে পিন কোড ও পাক কোড (SIM PIN Code,  SIM PUK Code) মোবাইলের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ফিচার, এই সম্পর্কে সবার জানা উচিত।

চলুন সবাই জেনে নেওয়া যাক পিন কোড ও পাক কোড (SIM PIN Code,  SIM PUK Code) কিভাবে কাজ করে।

সিম পিন কোড ও পাক কোড (SIM PIN Code, SIM PUK Code)

☞ সিম পিন কোড ⇨SIM PIN Code কি?

পিন (PIN) হলো পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নাম্বার, সংক্ষেপে পিন (PIN) নামে পরিচিত, এটি একটি ৪ ডিজিটের কোড (বেশিও হতে পারে)। আমরা যখন সিম কার্ড (SIM Card) ক্রয় করি সেই সময় সিমের সাথে দুটি পিন কোড দেওয়া থাকে।

প্রাথমিক ভাবে পিন কোড (PIN Code) ব্যবহারের বাধ্যবাধকতা থাকেনা। আপনি যদি এই পিন ব্যবহারের ফিচারটি চালু করেন। তাহলে আপনি ফোনে সিম প্রবেশ করানোর পর আপনি যতবার ফোন চালু করবেন ততবার সিম অপারেটরের মোবাইল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার জন্য সিম(SIM) এর পিন (PIN) প্রয়োজন হবে।

☞ সিম কী? What is SIM?

সিম কার্ড মূলত একটি ছোট চিপ যা প্লাস্টিকের সাপোর্টের সাহায্যে ফোনে ব্যবহার করা হয়। এই চিপ ব্যবহার করে মোবাইল অপারেটর ফোন নাম্বার আইডেন্টিফাই করে এবং ভয়েস ও ডাটা প্ল্যান প্রদান করে। সিমে থাকা তথ্যের সুরক্ষা নিশ্চিত করে সিম কার্ড এর এই পিন নাম্বার। মোবাইলে থাকা সিম কার্ড এর পাসওয়ার্ড হিসেবে কাজ করে পিন কোড। অথোরাইজেশন ছাড়া সিম নেটওয়ার্কযুক্ত ডিভাইসের অ্যাকসেস যাতে অন্য কোনো ব্যক্তি না পায় তা এই পিন কোড (SIM PIN Code) নিশ্চিত করে।

পিন কোড (SIM PIN Code) হলো একটি সাধারণ সংখ্যার ৪ ডিজিটের কোড, যা ফোন প্রতিবার চালু হওয়ার সময় প্রদান করতে হয়। তবে বেশিরভাগ ফোনে ডিফল্টভাবে এই ফিচারটি বন্ধ করা থাকে।জিএসএম(GSM) ফোনসমূহে পিন কোড ফোনের সাথে নয়, বরং সিম কার্ডের সাথে যুক্ত থাকে।

সিম পিন (SIM PIN) ফিচার চালু করলে প্রতিবার ফোন চালু করলে পিন কোড (PIN Code) প্রদান করতে হবে। আর ভুল পিন কোড (PIN Code) পরপর তিনবার (3) প্রদান করলে সিম কার্ড বন্ধ হয়ে যাবে। এই লক হওয়া মোবাইল খোলা যায় পাক কোড ব্যবহার করে।

সিমে সাধারণত দুটি পিন কোড থাকেঃ

PIN 1 এবং PIN 2 , যেখানে পিন ১ ( PIN 1) সিম এক্সেস করতে সবচেয়ে বেশি দরকার হয়। অপরদিকে ফোনের ফিক্সড ডায়াল, কন্টাক্ট লিস্ট বিষয়ক হাতেগোনা কিছু ফিচারের জন্য পিন ২ (PIN 2) ব্যবহৃত হয়। সিমের পিন কোড (SIM PIN Code) চার থেকে আট ডিজিটের হতে পারে।

পিন (PIN) কোড ও পাক (PUK) কোড, উভয়ই সিম অপারেটর কতৃক প্রদত্ত। একজন ব্যবহারকারী সিম এর পিন কোড পরিবর্তন করতে পারেন, তবে পাক কোড পরিবর্তন সম্ভব নয়।

সিম এর পিন কোড ব্যবহার করা কি আবশ্যক?

প্রতিটি সিম কার্ডে পিন কোড রয়েছে, তবে পিন কোড ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক নয়। অর্থাৎ ব্যবহারকারী চাইলে পিন কোড ব্যবহার করতে পারে, আবার না ও করতে পারে। ফোন হারিয়ে গেলে বা চুরি গেলে সেক্ষেত্রে সিমে থাকা ব্যাক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে পিন কোড। তাই সম্ভব হলে সিম এর পিন কোড ব্যবহার করা ভালো।


অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোন এর পিন কোড এর মধ্যে পার্থক্য আছে কি?

যেসব ডিভাইসে সিম কার্ড সাপোর্ট করে, তার প্রত্যেকটিতেই পিন কোড ফিচারটি কাজ করে। অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোনও তার ব্যতিক্রম নয়। আইফোন ও অ্যান্ড্রয়েড, উভয় স্মার্টফোনের পিন কোড ফিচারে কোনো পার্থক্য নেই। তথা সিম এর পিন কোড ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড ও আইফোনে একই ভাবে কাজ করে। পিন কোড ফোনের সুরক্ষার বাড়তি একটি পদক্ষেপ, এই ব্যাপারে তো নিশ্চিত হওয়া গেলো। এবার জানি চলুন পাক কোড কি ও এটি আসলে কী ক্ষেত্রে কাজে আসে।


☞ সিম পাক কোড কী?⇨ What is SIM PUK Code?

পারসোনাল আনব্লকিং কি (PUK) ফোনের পিন কোড ভুলে গেলে বা হারিয়ে ফেললে পিন কোড রিসেট করতে ব্যবহৃত হয়। সিম কার্ড এর পিন কোড ভুলে গেলে বা হারিয়ে ফেললে সেক্ষেত্রে পাক কোড ব্যবহার করে সিম কার্ডের পিন কোড রিসেট করা যায়।
প্রতিটি মোবাইল ফোনেই পিন প্রটেকশন ফিচারটি বিদ্যমান। পিন সিকিউরিটি ফিচারটি চালু থাকলে ফোন চালু করার পর ৪ (অথবা কিছু কিছু ক্ষেত্রে বেশিও হতে পারে) ডিজিটের পিন কোড প্রদান করে ফোন আনলক করতে হয়, যা ছাড়া মোবাইল নেটওয়ার্কে ফোন সংযুক্ত হয়না।

পরপর তিনবার ভুল পিন কোড প্রদান করলে সিম কার্ড লক হয়ে যায়। ভুল পিন কোড প্রদানের কারণে কিংবা ভুলে গেলে সেক্ষেত্রে পিন কোড রিসেট করতে পাক কোড ব্যবহার করা যায়। মূলত সিম কার্ডের প্যাকেজিংয়েই পাক কোড খুঁজে পাবেন। হারিয়ে ফেললে বা ভুলে গেলে পিন কোড রিসেট করা যাবে পাক কোড ব্যবহার করে।

☞ PUK1 ও PUK2 কোড এর পার্থক্য

সিমে দুইটি পাক কোড পাওয়া যায়, একটি হল PUK1, অন্যটি হল PUK2 কোড। এই দুইটি পাক কোড এর কাজ হলো আলাদা দুইটি পিন কোড আনলক করা। এখানে PIN1 আনলক করতে PUK1 ও PIN2 আনলক করতে PUK2 ব্যবহার করতে হয়।

PIN1 প্রদানে ব্যার্থ হলে সিম কার্ডের সকল কার্যক্রম ব্যহত হবে। অন্যদিকে PIN1 এর অ্যাকসেস ম্যানেজের পাশাপাশি ফোন নাম্বার এর মত বিভিন্ন ফিচার ব্লক হয়ে যাবে PIN2 ভুল প্রদান করলে। ভুলে গেলে কিংবা হারিয়ে ফেললে  PIN1 ও PIN2 রিসেট করতে যথাক্রমে PUK1 ও PUK2 কোড ব্যবহার করতে হয়।

☞ সিম পাক কোড ব্যবহার⇨ SIM PUK Code

অর্থাৎ পিন কোড পরপর তিনবার ভুল প্রদান করলে সিম লক হয়ে যায়। এরপর এই লক খুলতে ও নতুন পিন কোড সেট করতে পাক কোড ব্যবহার হয়। আবার পাক কোড যদি একটানা ১০বার ভুল প্রদান করা হয়, তবে সিম কার্ডটি স্থায়ীভাবে ব্লক হয়ে যাবে। এমন অবস্থায় সিম রিপ্লেস করা ছাড়া উক্ত সিমের নাম্বার ব্যবহার করার আর কোনো উপায় থাকেনা।

পাক কোড হলো পিন কোড ভুলে গেলে সে সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার উপায়। অর্থাৎ পিন কোড ভুলে গেলে তা পাক কোড ব্যবহার করে রিসেট করা গেলেও পাক কোড ভুলে গেলে বিশাল সমস্যা পড়তে পারেন। তাই সম্ভব হলে গোপন কোনো স্থানে পাক কোড সংরক্ষণ করে রাখতে পারেন।

পাক কোড হলো সিম লক হওয়া অবস্থা থেকে উদ্ধার করার অস্ত্র। ভুল পিন পরপর তিনবার প্রদানে সিম লক হয়ে গেলে পাক কোড ব্যবহার করে সিম এর লক খোলা যাবে ও পিন রিসেট করা যাবে। প্রতিটি সিম কার্ডে এই ফিচারসমূহ রয়েছে, যা সিম কার্ডের সুরক্ষা নিশ্চিত করে। সাধারণত পাক কোড ৪ থেকে ৮ ডিজিটের সংখ্যা হতে পারে, যা শুধুমাত্র ভুল পিন প্রদানে ফোন লক হয়ে গেলে তবেই ব্যবহার করা যাবে পাক কোড।

এসএসসির ২০২১ পরীক্ষার ফল প্রকাশ | জাহান বাংলা

এসএসসির ২০২১ পরীক্ষার ফল প্রকাশ | জাহান বাংলা

 এসএসসির ২০২১ পরীক্ষার ফল প্রকাশ | জাহান বাংলা

আজ মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমি (নায়েম) অডিটোরিয়ামে একটি কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি বলেন, এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামী ৩০ ডিসেম্বর।

এবার ও ২০২১ এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের আবেদন নেওয়া হবে অনলাইনে। আবেদন নেওয়া শুরু হবে ৫ জানুয়ারি থেকে। ২ মার্চ থেকে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

গত ১৪ নভেম্বর থেকে সারাদেশে শুরু হয় এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। সকাল ১০টায় শুরু হয়ে পরীক্ষা শেষ হয় সাড়ে ১১টায়। এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন। সে হিসাবে এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৩৩৪ জন।

অন্যদিকে বাংলাদেশ ছাড়াও আটটি দেশে ৪২৯ জন পরীক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। দেশের বাইরে ৯টি কেন্দ্র হলো- জেদ্দা, রিয়াদ, ত্রিপলি, দোহা, আবুধাবি, দুবাই, বাহরাইন, ওমানের সাহাম ও গ্রিসের এথেন্স।

সানি লিওনির বিরুদ্ধে ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে’ আঘাত দেওয়ার অভিযোগ | জাহান বাংলা

সানি লিওনির বিরুদ্ধে ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে’ আঘাত দেওয়ার অভিযোগ | জাহান বাংলা

বলিউড তারকা সানি লিওনির ‘মধুবন’ | জাহান বাংলা

সানি লিওনির বিরুদ্ধে ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে’ আঘাত দেওয়ার অভিযোগ।

বলিউড তারকা সানি লিওনির ‘মধুবন’ শিরোনামে একটি গানের মিউজিক ভিডিওতে পারফর্ম করে। বলিউড তারকা সানি লিওনির বিরুদ্ধে ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে’ আঘাত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, রাধা-কৃষ্ণের প্রেমকাহিনি নিয়ে এই গানে সানি লিওনির নাচ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন অনেক নেটিজেন। সেই অভিযোগে এবার মথুরার পুরোহিত নবল গিরি মহারাজ মিউজিক ভিডিও নিষিদ্ধের দাবি তুলেছেন।এই পুরোহিত এমনও হুমকি দিয়েছেন, সানি লিওনি প্রকাশ্যে ক্ষমা না চাইলে তাঁকে ভারতে থাকতে দেওয়া হবে না।

১৯৬০ সালে ‘কোহিনূর’  সিনেমায় ‘মধুবন মে রাধা নাচে’ শিরোনামে এই গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন প্রথ্যাত সংগীতশিল্পী মোহাম্মদ রফি। সম্প্রতি সারেগামা মিউজিক এই গানটির নতুন মিউজিক ভিডিও ‘মধুবন’ শিরোনামে প্রকাশ করে।