মোদির মুখে “তিন তালাক” মুসলিম নারীর ভোট টানার জন্য - জাহান বাংলা নিউজ


মোদির মুখে তিন তালাক
মোদি সরকার ‘তিন তালাক’ প্রথা রুখতে কড়া আইন করলেও তৃণমূল তার বিরোধিতা করে মুসলিম নারীদের বিরুদ্ধে গেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। ‘মুসলমান মা বোনেরা দিদিকে (মমতা বন্দোপাধ্যায়) অনেক সমর্থন দিয়েছেন। কিন্তু দিদি তাদের সঙ্গে খুব খারাপ কাজ করেছেন। তাদের তিন তালাক প্রথা থেকে মুক্ত করতে কড়া আইন করেছে বিজেপি সরকার। কিন্তু দিদি মুসলিম বোন ও কন্যাদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে গেছেন।’ কৃষ্ণনগরে আয়োজিত সভায় মোদি বলেন, শনিবার (১০ এপ্রিল) রাজ্যে চতুর্থ দফার ভোটগ্রহণের দিন এক সভায় এসব কথা বলেন মোদি।

পশ্চিমবঙ্গে দুটি সভা করেন তিনি। প্রথমটি শিলিগুড়িতে ও পরেরটি নদিয়ার কৃষ্ণনগরে। বিধান সভার নির্বাচনে লড়াইয়ে মেরুকরণের নানা প্রসঙ্গের মধ্যেই এবার ‘তিন তালাক’ নিয়ে কথা বলেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

মোদি আর বলেন, মুসলিম নারীরাও স্বাধীনতা চান নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে চান উল্লেখ করে। এবং সরাসরি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগের তোলেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, তারকেশ্বেরের ওই সভায় নাম উচ্চারণ না করে ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা তথা সেকুলার ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়ার (আইএসএফ) প্রধান আব্বাস সিদ্দিকির বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু ভোট ভাগের অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘দিদি মুসলিম মেয়েদের থেকে কট্টরপন্থীদের কথা বেশি চিন্তা করেছেন।’ এরপর হুঁশিয়ারির সুরে তিনি বলেন, ‘এই মঞ্চ থেকে পশ্চিমবঙ্গের সব মা, বোন, কন্যাকে বলছি ডাবল ইঞ্জিন সরকার আপনাদের ভালোর জন্য ২৪ ঘণ্টা কাজ করবে।’ দেশটির সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার জানায় তৃতীয় দফার ভোটের আগে হুগলির তারকেশ্বরে মমতার একটি মন্তব্যে সংখ্যালঘু ভোট এককাট্টা করার স্পষ্ট বার্তা ছিল বলে আগেই অভিযোগ করে বিজেপি।


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url