দেশের সবচেয়ে বড় করোনা চিকিৎসার হাসপাতাল উদ্বোধন আজ - জাহান বাংলা নিউজ

 

বাংলাদেশ হাসপাতাল উদ্বোধন
ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতাল টি আজ (রবিবার ১৮ এপ্রিল) বেলা ১১ টায় উদ্বোধন করা হয়েছে। রাজধানীর মহাখালীতে এই হাসপাতালটি তৈরি করা হয়েছে। ১,০০০ শয্যার এই হাসপাতালে ১০০ শয্যার আইসিইউ এবং ১১২ শয্যার এসডিআই স্থাপন করা হয়েছে। এই ছাড়াও করোনা রোগীদের জন্য সেন্টার অক্সিজেন ব্যবস্থা থাকছে। হাসপাতালটি পরিচালনা করবে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জহির মালেক এই ডিএনসিসি ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালটি উদ্বোধন করেন। করোনা চিকিৎসার দেওযার জন্য এটিই বাংলাদেশ সবচেয়ে বড় হাসপাতাল।

ডিএনসিসি কাঁচাবাজারের এক লাখ  ৮০ হাজার ৫৬০ বর্গফুট আয়তার ফাঁকা জায়গায় এই হাসপাতালে ভবনটি তৈরি করেন এবং কার্য়ক্রম চালু হচ্ছে। এতদিন মার্কেটটিতে বিদেশগামীদের এবং করোনা আইসোলেশন পরিক্ষা ল্যাব হিসেবে ব্যবহার হতো। একন থেকে করোনা হাসপাতালের কর্য়ক্রম চালু হলো।

হাসপাতলটিতে চিকিৎসাসেবা দিতে ৫০০ চিকিৎসক,  ৭০০ নার্স, ৭০০ স্টাফ এবং ঔষধ, সরঞ্জামের ব্যবস্থা করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ২০২০ সালের ৯ আগস্ট করোনা আইসোলেশন সেন্টার পরিদর্শনে গিয়ে মহাখালীর এই মার্কেটটিকে ৫০০ শয্যার আরবান (নগর) হাসপাতালে রূপান্তরের ঘোষণা দিয়েছিলেন ।

তিনি বলেছিলেন, ডিএনসিসি মার্কেট ৭ দশমিক ১৭ একর জমির ওপর মূলত পাইকারি কাঁচাবাজারের জন্য তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন কারণে এটি বাজারে বাস্তবায়ন করা যায়নি। এই ভবনকে আমরা যদি আরবান হাসপাতালে রূপান্তর করতে পারি, তাহলে নগরবাসীর জন্য অনেক সুবিধা হবে। এখন এটিকে কিভাবে হাসপাতালে রূপান্তর করা যায়, আমরা তার পরিকল্পনা করছি। আজ ডিএনসিসি মার্কেটি করোনা চিকিৎসার হাসপাতাল হিসেবে তৈরি করা হয়েছে এবং আজ তা উদ্বোধন করলো।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url