ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বরিস জনসনের ‘কেলেংকারি’ একটি মেল ফাঁস | জাহান বাংলা
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

ব্রিটেনে গত বছর তখন দেশজুড়ে চলছিল জাতীয় লকডাউন। সে সময় দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সরকারি বাসভবন ও কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটের ১০ নম্বর গার্ডেনে 'ব্রিং ইউর ওউন বুজ' বা 'আপনার নিজের মদ আনুন' পার্টিতে তার কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়।

সেই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং বরিস জনসন ও তার স্ত্রী। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া এক ইমেইলে এই তথ্য জানা গেছে। বৃটিশ আইটিভি নিউজ এই মেইল প্রকাশ করেছে।

ফাঁস হওয়া মেইল। ছবি সংগৃহীত
ফাঁস হওয়া মেইল। ছবি সংগৃহীত

মেইলে লেখা ছিল, এক অবিশ্বাস্য ব্যস্ত সময় পর আমরা ভাবছি এই সন্ধায় ১০ নম্বর গার্ডেনে 'মনোরম আবহাওয়ার সর্বাধিক ব্যবহার' এবং সামাজিক দূরত্বের কিছু পানীয় পান করা ভাল হবে৷ অনুগ্রহ করে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে যোগ দিন এবং আপনার মদ নিয়ে আসুন।  

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালের ২০ মে আয়োজন করা হয় ওই পার্টির। সে সময় দেশটিতে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করা নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু সেই সময় পার্টিতে অন্তত ১০০ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তবে সে দিন সেই পার্টিতে প্রায় ৪০ জন অংশ নেন। যাদের মধ্যে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং তার স্ত্রী ক্যারি সিমন্ডসও উপস্থিত ছিলেন। 

আইটিভির খবর, দেশটির প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল প্রাইভেট সেক্রেটারি মার্টিন রেনল্ডস ডাউনিং স্ট্রিটের ওই পার্টিতে অংশ নিতে ১০০ এর বেশি জনকে মেইল করেন। এসবের মধ্যে রয়েছেন বরিসের উপদেষ্টা, বক্তৃতা লেখক এবং দরজার স্টাফ। ওই পার্টির আয়োজন কালে দেশটির বেশিরভাগ শিক্ষার্থীদের স্কুল বন্ধ ছিল, বন্ধ ছিল বার, রেস্টুরেন্ট। একই সঙ্গে সামাজিক মেলামেশায় ছিল কড়া নিয়ন্ত্রণ।

 বিভিন্ন পরিবারের দুজন লোককে বাইরে দেখা করার অনুমতি ছিল। শর্ত ছিল তাদের ২ মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এদিকে দেশটির বিরোধী লেবার পার্টি জনসনকে অভিযুক্ত করেছে যে, আমাদের জন্য তিনি যে নিয়ম করেছেন তার প্রতি তার নিজের কোন সম্মান নেই। এছাড়া বিরোধী অনেক নেতা এর কড়া নিন্দা জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বৃটিশ সংবাদ মাধ্যমে বিবিসিকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী এবং তার স্ত্রী পার্টিতে ছিলেন। এই বিষয়ে বরিসের কার্যালয়ে যোগাযোগ করা হলে কোনো মন্তব্য করা হয় নি বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। 

দেশটির মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে তারা এই বিষয়ে সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। 

তথ্যসূত্র: বিবিসি, আইটিভি, এনডিটিভি।  


শেয়ার করুন