যাদের ধূমপানের অভ্যাস আছে, তাদের কোভিড আক্রান্ত ঝুঁকি বাড়াতে পারে, জানালেন ফুসফুস বিশেষজ্ঞ | জাহান বাংলা

ধূমপান অভ্যাস করোনা সংক্রমণ ঝুঁকি বাড়ায়

দেশ বিদেশে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই বাড়াচ্ছে। চিকিৎসকদের তরফ থেকে বারেবারে বলা হয়েছে সচেতনতা, সাবধানতা এবং সুস্থ জীবন যাপনের দ্বারা প্রতিরোধ করা যেতে পারে এই করোনা বা কোভিড-১৯ ভাইরাস। তবে কথায় আছে সাবধানের মার নেই। 

বিশেষ করে যাঁরা ধূমপান করেন তাঁদের এই পরিস্থিতিতে আরও বেশি সচেতন থাকাটা জরুরি বলে জানাছেন চিকিৎসকেরা।

ফুসফুসে বা কী রকম প্রভাব পড়তে পারে?

আনন্দবাজার কে, এই সংক্রান্ত প্রশ্নের উত্তর দিলেন ভারতের ফুসফুস বিশেষজ্ঞ “সুস্মিতা চৌধুরী”।

ধূমপানের অভ্যাস কি করোনার ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে? 

সুস্মিতা বললেন, ‘‘আমরা সকলেই জানি যে যাঁদের কো-মর্বিডিটি আছে অন্যান্যদের তুলনায় তাঁদের যেকোনও ধরনের ভাইরাস বা ব্যাকটিরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা কম থাকে। আমাদের শ্বাসনালীটা ঠোঁটের মতোই নরম। সেই শ্বাসনালীর মধ্যে এমন অনেক কোষ থাকে যেগুলি রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ শক্তি গড়ে তোলে।

ঘন ঘন ধূমপান করার ফলে সেই কোষগুলি পুড়ে যায়। ফলে ওই স্থানের প্রদাহ হওয়ার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায় অনেকাংশে। তাই সুস্থ থাকতে ধূমপান না করাই উচিত।’’

দীর্ঘদিনের ধূমপানের অভ্যাস হঠাৎ করে ছেড়ে দিলে কতটা মেরামত হওয়ার আশা আছে? 

এই প্রশ্নের উত্তরে সুস্মিতা বললেন, ‘‘এটা তো মিরাক্‌ল নয় যে আজকে বন্ধ করে দিলে কাল থেকে সব ঠিক হয়ে যাবে। ধূমপানের ফলে আপনার ভিতরে যতটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সেটা কিন্তু ভাল হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। 

চিকিৎসকরা বলেন, যে সপ্তাহে এক বার মদ্যপান করতে পারেন। কিন্তু তাঁরা কখনও বলেন না যে সপ্তাহে এক দিন ধূমপান করুন। তবে এখন ধূমপান ছাড়লে যেটা হবে যে ক্ষতি যতটা হয়ছে ততটা পর্যন্ত থাকবে, ক্ষতিটা আর বেশি দূর এগোবে না।’’

সূত্রঃ আনন্দবাজার

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url